পিরিয়ড প্যান্টির ৬টি বেনেফিটস জেনে নিন।

পিরিয়ড প্যান্টির ৬টি বেনেফিটস জেনে নিন।  

পিরিয়ড প্যান্টির নাম হয়তো অনেকেই শুনেছেন। বাজারে পিরিয়ডের রিলেটেড অনেক ফিমিনিন হাইজেন প্রড্যাক্ট এসেছে। তার মধ্যে পিরিয়ড প্যান্টি কিন্তু পাশ্চাত্য দেশগুলোতে নিজের স্থান বানিয়ে নিয়েছে। আজকের আর্টিকেলে পিরিয়ড প্যান্টি নিয়ে বলবো। 

পিরিয়ড প্যান্টি কি?

প্যান্টির মধ্যে ফেব্রিক থাকে, যা ব্লাড শুষে নিতে সাহায্য করে। প্যান্টিগুলো এমনভাবে ডিজাইন করা হয় যাতে ব্লাড শুষে নিতে পারে। যাতে গন্ধ প্রতিরোধ করার জন্য অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল এবং ময়েশ্চারার উইকিং প্রপারটিজ রয়েছে, এতে করে প্যান্টি ক্লিন করে পুনরায় ব্যবহার করতে পারবেন।

পিরিয়ড প্যান্টির ৬টি বেনেফিটস- 

আরামদায়কঃ যাদের হেভি ফ্লো, এক্সটা প্রট্যাকশনের জন্য ডাবল প্যাড পড়ে থাকেন। কারন দাগ লেগে যাওয়ার একটা ভয় থাকে। পিরিয়ড প্যান্টি যেহেতু লিক হলে প্রট্যাকশন দেয়, তাই এক্সটা প্যাড পড়ার প্রয়োজন পড়ে না। লাইফকে অনেক আরামদায়ক করে তুলে।  

দাগ প্রতিরোধেঃযাদের হেভি ফ্লো, তারা প্রায় কাপড়ে ব্লাড ভরে যাওয়া ফেইস করে থাকেন। আর  পছন্দের ড্রেসে ব্লাডের দাগ ভরে গেলে খুব বিরক্ত লাগে কিন্তু। পিরিয়ড প্যান্টি দাগ পড়া থেকে প্রতিরোধ করে। 

পুনরায় ব্যবহারযোগ্যঃ প্যান্টি ঠিকমত ক্লিন করে  তা কিন্তু  আবার ব্যবহার করতে পারবেন। আর একটা ভালো কোয়ালিটির প্যান্টি ২থেকে ৫ বছর ব্যবহার করা যায়। 

খরচ কমে যায়ঃ যেহেতু “পুনরায় ব্যবহারযোগ্য” এতে করে বারবার কিনতে হবে না, খরচ কমে যায়। 

পরিবেশবান্ধব প্রড্যাক্টঃ পরিবেশ দূষণের মুল কারন হচ্ছে প্লাস্টিক বা বিভিন্ন ম্যাটেরিয়াল যা সহজে মাটির সাথে মিশে যেতে পারে না, উল্টো কেমিক্যাল দ্বারা পরিবেশকে নষ্ট করছে। এই ক্ষেত্রে প্যান্টি “পুনরায় ব্যবহারযোগ্য” দেখে পরিবেশ বান্ধব। 

লিকেজ হয় নাঃ পিরিয়ড প্যান্টি যেহেতু লিকেজ হয় না, তাই পিরিয়ডের প্রথম দিকে যখন স্পটিং হয় এবং শেষের দিনগুলোতে পড়তে পারেন। 

পিরিয়ড প্যান্টিসের বেনিফিটগুলো জানার পরও বেশ কিছু প্রশ্ন মাথায় আসে- 

কীভাবে ক্লিন করতে হবে?

উষ্ণ গরম পানিতে হালকা সেভলন দিয়ে ক্লিন করে নিতে পারেন। এতে করে কোন রকম ব্যাক্টেরিয়া থাকবে না। এরপর ভালো করে শুকিয়ে নিতে হবে। 

সারাদিন পরে থাকা যাবে?  

হ্যাঁ, সারাদিন পরে থাকা যায়। এই ক্ষেত্রে ফ্লো অনুযায়ী প্যান্টি কিনে নিতে পারেন। বাজারে লাইট, মিডিয়াম, হেভি- সব ধরনের প্যান্টি কিনতে পাওয়া যায়।  

মনে রাখবেন, সাধারণ প্যান্টির মত সময়মত চেঞ্জ করে নেয়ায় ভালো। কারন হাইজেন মেইনটেইন সব ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। 

আশা করি আজকের আর্টিকেলটি হেল্পফুল ছিল। কোন প্রশ্ন থাকলে পিরিয়ড প্যান্টি বা হেলথ রিলেটেড Lilacforyou.com -এ ইনবক্স করুন। 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *